Content

যমুনা ব্যাংকে ব্র্যাঞ্চ ম্যানেজার পদে চাকরি

যমুনা ব্যাংক লিমিটেড এ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি কর্তৃপক্ষ কর্তৃক প্রকাশিত হয়েছে। যমুনা ব্যাংক লিমিটেড এ “ব্র্যাঞ্চ ম্যানেজার” পদে জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ২৫ জুলাই ২০২২ পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন। এটি বেকারদের জন্য একটি চমৎকার সুযোগ। কারণ সবাই একটি ভালো চাকরি করতে চায়। এই ক্ষেত্রে, এই চাকরির বিজ্ঞপ্তিটি মানুষের জন্য অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের দেশে অধিকাংশ মানুষই বেকার। তাদের জন্য এই কাজটি খুবই প্রয়োজনীয়।

সহজেই সকল ধরনের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি পেতে চাইলে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে এক্টিভ থাকুন।

Click Here To Apply

Do you want to apply for DV Lottery 2024?

Then you can apply easily from mobile by clicking here. All men and women aged 18-32 can apply. This is a golden opportunity to work in America.

যমুনা ব্যাংকে ব্র্যাঞ্চ ম্যানেজার পদে চাকরি

আপনি যদি এই চাকরির জন্য আবেদন করতে চান, তাহলে আপনাকে সময়সীমার মধ্যে আপনার আবেদন জমা দিতে হবে। যমুনা ব্যাংক লিমিটেড এ চাকরির বিজ্ঞপ্তি নিচে দেওয়া হয়েছে।

Click Here To Apply

যমুনা ব্যাংক লিমিটেড এ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

প্রতিষ্ঠানের নাম: যমুনা ব্যাংক লিমিটেড
পদের নাম: ব্র্যাঞ্চ ম্যানেজার
পদ সংখ্যা: নির্ধারিত নয়
শিক্ষাগত যোগ্যতা: স্নাতকোত্তর
অভিজ্ঞতা: ১০ বছর
বেতন: আলোচনা সাপেক্ষে
চাকরির ধরন: চুক্তিভিত্তিক
প্রার্থীর ধরন: নারী-পুরুষ
বয়স: নির্ধারিত নয়
কর্মস্থল: যে কোনো স্থান
সময়সীমা: ২৫ জুলাই ২০২২
সূত্র: অফিসিয়াল সাইট

আবেদন প্রক্রিয়া: আগ্রহী প্রার্থীরা অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনের জন্য এখানে ক্লিক করুন

 

Click Here To Apply

  এমন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি পেতে চাইলে গুগোল নিউজ ফিড ফলো করুন  

  বাংলায় আরো নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেখতে এখানে ক্লিক করুন   

Click Here To Apply

যমুনা ব্যাংকে ব্র্যাঞ্চ ম্যানেজার পদে চাকরি

যমুনা ব্যাংক লিমিটেড এ চাকরির ইন্টারভিউ : যে বিষয়গুলো গুরুত্বপূর্ণ

যমুনা ব্যাংক লিমিটেড এ চাকরির সাক্ষাতকারে সফল হওয়ার প্রস্তুতি

সাক্ষাৎকার, যার মাধ্যমে নিয়োগকর্তা আপনার ব্যক্তিত্ব, আগ্রহ, আপনার জীবনের উদ্দেশ্য ও লক্ষ্য জানতে পারেন, আপনি আর আপনার দক্ষতা তখন আর কোনও কাগজে সীমাবদ্ধ থাকে না। নিয়োগকর্তার সামনে নিজেকে দক্ষভাবে তুলে ধরার একটি অনন্য সুযোগ হয়ে আসে সাক্ষাৎকার। মূলত এটিই আপনার অন্যতম একটি সুযোগ নিজেকে নিয়োগকর্তার সামনে সরাসরি উপস্থাপন করার যার মাধ্যমে আপনি নিদিষ্ট উদাহরণের সাহায্যে নিয়োগকর্তাকে বোঝানোর সুযোগ পান কেন আপনি সংশ্লিষ্ট পদের জন্য যোগ্য। অন্যদিকে সাক্ষাৎকারের মাধ্যমে আপনাকে পুঙ্খানুপুঙ্খ ভাবে যাচাই করার সুযোগ পান নিয়োগকর্তা। তাই সাক্ষাতকারে নিজেকে সঠিক ভাবে নিজের মত করে উপস্থাপন করতে না পারলে আপনার মেধা থাকা সত্ত্বেও তা ব্যর্থতায় পর্যবসিত হবার সম্ভাবনা থাকে। আর নিজেকে সঠিক ভাবে এবং সফলভাবে উপস্থাপন করার জন্য একটি ভালো প্রস্তুতির গুরুত্ব অনস্বীকার্য। তাই আসুন জেনে নেই কিভাবে নিবেন একটি সফল সাক্ষাৎকারের প্রস্তুতি।


সাক্ষাতকার কেন?

একটি ভালো প্রস্তুতি তখনি সম্ভব যখন আপনি জানবেন কেন প্রস্তুতি নিচ্ছেন , কিসের জন্য নিচ্ছেন এবং যার সামনে নিজেকে উপস্থাপন করচ্ছেন তার উদ্দেশ কি? কেন তিনি আপনার সাক্ষাৎকার নিচ্ছেন।এই বিষয়গুলো যদি আপনার জানা থাকে তাহলে সাক্ষাৎকারের প্রস্তুতি নেয়াও যেমন সহজ হয় ঠিক তেমনি নিজেকে সাবলীল ও দক্ষভাবে উপস্থাপন করাও সহজ হয়।তাহলে আসুন জেনে নেই নিয়োগকর্তা কেন সাক্ষাতকার নেন।চাকরি প্রার্থীর সাথে সরাসরি যোগাযোগের মাধ্যমে চাকরিদাতা জানতে চান প্রার্থী

  • নিজের লক্ষ্য, উদ্দেশ্য সক্ষমতা আর দুর্বলতা সম্পর্কে সম্যক ধারনা আছে কিনা
  • সাক্ষাৎকারকৃত পদটির সম্পর্কে প্রার্থীর ধারনা আছে কিনা
  • দক্ষতা, যোগ্যতা প্রতিষ্ঠানের লক্ষ্য পূরণে প্রার্থী সহায়ক কিনা কিংবা প্রার্থী তা প্রমাণ করতে সক্ষম কিনা
  • আত্মবিশ্বাসী কিনা
  • পূর্ব অভিজ্ঞতা আর সুনির্দিষ্ট প্রমাণের মাধ্যমে নিজের সক্ষমতার কথা বলতে পারেন কিনা
  • সংশ্লিষ্ট পদের জন্য যোগ্য কিনা

সম্পূর্ণ সাক্ষাৎকার জুড়ে এই প্রশ্নেরই উত্তর নিয়োগকর্তারা খুঁজে থাকেন, তাই আপনার যোগ্যতা ও দক্ষতার বর্ণনার মাধ্যমে তাদের কে বুঝাতে হবে কেন আপনি নিজেকে পদটির জন্য উপযুক্ত মনে করেন।


যমুনা ব্যাংক লিমিটেড এ চাকরির সাক্ষাতকারে সফল হওয়ার তিনটি পূর্বশর্ত

১. ভয়কে জয় করুন

ভয়কে জয় করুন। আপনার মনের ভেতরের অহেতুক ভয়টিকে যদি জয় করতে না পারেন তাহলে সে কখনোই আপনাকে জয়ী হতে দেবে না শত যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও দেখবেন আপনি হেরে যাচ্ছেন। কারণ ভয় আপনাকে হারিয়ে দিচ্ছে। আপনাকে আটকে ধরে রাখছে অহেতুক দুশ্চিন্তার বেড়াজালে। তাই ভয় নয়,ভয়কে জয় করুন। নিজের প্রতি বিশ্বাস স্থাপন করুন।নিজেকে বলুন আপনি পারবেন।খারাপ হলে আপনি চাকরিটা পাবেন না,এর বেশি কিছু নয়। অহেতুক ভয়কে দূর করার জন্য নিজেকে তিনটি কথা বলুন

  • আপনি কোন বাঘের খাঁচায় পড়তে যাচ্ছেন না
  • পৃথিবীর সবাই সবকিছু জানে না , এমন অনেক কিছুই আছে যা আপনি জানবেন কিন্তু চাকরিদাতা জানবেন না
  • আপনার হারানোর কিছু নেই, হয় আপনি জিতবেন না হয় আপনি শিখবেন

এছাড়াও সাক্ষাতকারের দিন ভয় কাটানোর জন্য ১০ মিনিট পূর্বে সাক্ষাতকারের স্থানে উপস্থিত হন, গলা শুকিয়ে আসলে পিওনের কাছ থেকে পানি খেয়ে নিতে পারেন সাক্ষাৎকার কক্ষে প্রবেশ করার পূর্বেই, কোনোভাবেই নিয়োগকর্তাদের কাছে পানি খেতে যাবেন না, স্নায়বিক দুর্বলতা কাটানোর জন্য বার বার দীর্ঘ নিশ্বাস নিন, এতে আপনি ভয় কাটিয়ে অনেক স্বাভাবিক ও সাবলীল হয়ে সাক্ষাৎকারে প্রবেশ করতে পারবেন। মনে রাখবেন, ভয় পেয়েছেন তো হেরেছেন, তাই ভয়কে জয় করুন সাফল্য আপনারই।

২. অনুশীলন অনুশীলন আর অনুশীলন

অনুশীলন,অনুশীলন আর অনুশীলন, একটি ভালো সাক্ষাৎকারের জন্য অনুশীলনের গুরুত্ব অনস্বীকার্য, তাই অনুশীলন করুন, সাক্ষাৎকারে যাবার পূর্বে যতটুকু অনুশীলন করা সম্ভব, নিজেকে যত ভালো করে তৈরি করবেন সাক্ষাৎকারে ততই সফলতার দিকে এগিয়ে যাবেন। আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে অনুশীলন করুন কিভাবে আপনি কথা বলবেন, আপনার অভিব্যক্তি গুলো ভালো করে লক্ষ্য করুন, দেখুন আপনি নিজেকে সন্তুষ্ট করতে পারচ্ছেন কিনা, আপনার চোখে যদি কোনো ভুল ধরা পরে তা ঠিক করার চেষ্টা করুন।তারপর আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে আবারও ছায়া সাক্ষাৎকার দিন, এই অনুশীলনটি আপনার ভেতরকার জড়তাগুলোকে ভেঙ্গে দিবে ফলে মূল সাক্ষাৎকারের সময় আপনি আরো সাবলীল ভাবে নিজেকে উপস্থাপন করতে পারবেন।আপনার অনুশীলনটিকে আরো একটু মাত্রা দিতে আপনার বন্ধুদের সাহায্য নিতে পারেন,তাদের সাহায্যে একটি ছায়া সাক্ষাৎকারের ব্যবস্থা করুন, জিজ্ঞাসা করুন আপনার অভিব্যক্তি,চোখের দৃষ্টির মাঝে কোনো স্নায়বিক দুর্বলতা প্রকাশ পেয়েছে কিনা, কেননা আপনার কথা দিয়ে আপনি আত্মবিশ্বাসের ছাপ ফুটিয়ে তুলতে পারলেও তা যদি আপনার অভিব্যক্তিতে প্রকাশ না পায় তাহলে তা নিয়োগকর্তাদের মাঝে বিশ্বাসযোগ্য হয়ে উঠবে না। প্রস্তুতিতে আরো একটু মাত্রা যোগ করতে আপনার অভিব্যক্তি গুলোকে ভিডিও করতে পারেন, আপনি নিজেও দেখে নিন কোথায় কোথায় ভুল হচ্ছে, অন্যদের জিজ্ঞাসা করুন, তাদের মতামত নিন এবং সেই অনুযায়ী নিজেকে তৈরি করুন।মনে রাখবেন একটি ভালো প্রস্তুতিই একটি ভালো সাক্ষাৎকারের পথ সুগম করে দেয়।

৩. দিবা স্বপ্ন নয়

কখনোই ভাবতে যাবেন না একটি সাক্ষাৎকারের মাধ্যমেই আপনি আপনার কাঙ্ক্ষিত চাকরিটি পেয়ে যাবেন, ভাবতে হবে এটা সূচনা মাত্র, সাক্ষাৎকার যেমনি হোক না কেন ভাবুন আপনি দুই ভাবেই সফল হবেন, হয় চাকরিটি পাবেন না হয় নতুন কিছু শিখবেন যা কাজে লাগিয়ে আপনি পরবর্তী সাক্ষাৎকারে ভালো করবেন। রে দেয়।


সাক্ষাৎকারের আগের দিন করণীয়

একটি সফল সাক্ষাৎকারের জন্য প্রয়োজন একটি ভালো প্রস্তুতি, তাহলে আসুন জেনে নেই কিভাবে নিবেন একটি ভালো প্রস্তুতি;

  • প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে যত বেশি সম্ভব তথ্য সংগ্রহ করুন , মনে রাখবেন এই সকল তথ্য আপনার সাক্ষাৎকারটিকে সফলতার দিকে নিয়ে যাবে, তাই জানুন,প্রতিষ্ঠানের খুঁটি নাটি সম্পর্কে, তাদের প্রতিযোগী কারা, বাজারে তাদের অবস্থান কেমন , তাদের কর্ম পরিবেশ ইত্যাদি। আপনার সংগৃহীত মূল্যবান তথ্য সাক্ষাৎকারের দিন আপনাকে আত্মবিশ্বাসী করে তুলবে এবং নিয়োগ কর্তারা বুঝবেন আপনি এই পদের জন্য কাজ করতে ইচ্ছুক ফলে নিয়োগকর্তার আপনার প্রতি একটি ইতিবাচক মনোভাব তৈরি হবে।
  • আপনার নিজের সম্পর্কে কি বলবেন তা আগে থেকে ঠিক করে নিন , খেয়াল রাখবেন তা যাতে ২ থেকে ৩ মিনিটেই বলা যায়, যাতে আপনাকে যখন জিজ্ঞাসা করা হবে আপনার সম্পর্কে বলুন তা যেন আপনি সহজ ও সাবলীল ভাষায় বলে দিতে পারেন, তবে লক্ষ্য রাখবেন কোনো ভাবেই যাতে তা মুখস্থ না শুনায়।
  • সম্ভাব্য কিছু প্রশ্নের উত্তর যা প্রায়শই সাক্ষাৎকারে এসে থাকে তাদের উত্তর আগে থেকে তৈরি করে নিন। সাক্ষাৎকারে আসা এই রকম কিছু পরিচিত প্রশ্ন হলো
    1. আপনার সম্পর্কে কিছু বলুন?
    2. আপনি পূর্বের চাকরিটি কেন ছেড়েছেন / কেন ছাড়তে চাচ্ছেন?
    3. এই প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে আপনি কি জানেন ?
    4. আপনার সামর্থ্য ও দুর্বলতাগুলো কি কি ?
    5. আপনি এই প্রতিষ্ঠানের জন্য কেন কাজ করতে চান ?
    6. এ যাবত কালে আপনার সব থেকে বড় অর্জন কি?
    7. আমরা কেন আপনাকেই নির্বাচন করবো ?
    8. আপনি কত টাকা বেতন প্রত্যাশা করছেন?
    9. আপনি যদি বস হতেন তাহলে আপনি এই প্রতিষ্ঠানের কোন বিষয়টি পরিবর্তন করতেন ?

সাক্ষাৎকারে যাবার পূর্বে

সাক্ষাতকারে যাবার আগে নিজেকে আয়নার সামনে আরো একবার দেখে নিন, দেখুন আপনার পোশাক ঠিক আছে কিনা,তাতে পেশাধারি মনোভাব ফুটে উঠেছে কিনা দেখে নিন আর আত্মবিশ্বাসের সাথে নিজেকে বলুন আমি পারব এবং দেখুন প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়েছেন কিনা, যে সকল বিষয়গুলো অবশ্যই সংগে রাখতে হবে তা হল

  1. আপনার জীবন বৃত্তান্তের তিন থেকে চারটি প্রিন্টেট কপি
  2. দুটি কলম, পেন্সিল আর সাক্ষাৎকারের অনুষ্ঠিত হবার ঠিকানা
  3. নোট টুকে রাখার জন্য আলাদা কাগজ

পৌঁছানোর পর যা যা করবেন

  1. ১০ মিনিট আগে পৌঁছানোর চেষ্টা করুন, ট্রাফিক জ্যাম এড়ানোর জন্য এক ঘণ্টা হাতে রেখে রওনা দিন
  2. প্রতিটি প্রার্থীকে নিয়োগকর্তার কাছে তার যোগ্যতা ,দক্ষতার আর ব্যক্তিত্বের পরীক্ষা দিতে হয়, তাই সম্ভাব্য প্রশ্নগুলো আরো একবার যাচাই করে নিন যাতে নিজেকে সাবলীল, আত্মবিশ্বাসী ও গুছিয়ে নিয়োগকর্তাদের সামনে উপস্থাপন করতে পারেন
  3. বিশ্রামাগারে যেয়ে আপনাকে শেষ বারের মতো আরও একবার দেখে নিন
  4. নিয়োগকর্তাকে হাস্য-জ্বল অভিবাদন জানান, তাদের সাথে আত্মবিশ্বাসের সাথে হ্যান্ডশেক করুন এবং অনুমতি নিয়ে বসে পড়ুন
  5. আপনার চেহারার মাঝে আত্মবিশ্বাসের ছাপ বজায় রাখুন, নিয়োগকর্তাদের চোখের দিকে তাকিয়ে হাস্য-জ্বল অভিব্যক্তিতে কথা বলুন।

সাক্ষাৎকারের সময় যা করবেন

  1. আপনি যে সকল বিষয় গুলোর উপর প্রস্তুতি নিয়ে এসেছেন সেই সকল বিষয়গুলোর প্রতি গুরুত্ব দিন , তবে খেয়াল রাখবেন আপনার কথায় কোনো ভাবেই যেন প্রকাশ না পায় আপনি আগে উত্তরগুলো মুখস্থ করে এসেছেন, চেষ্টা করবেন অত্যন্ত সাবলীল ভাবে আত্মবিশ্বাস সাথে কথা বলতে
  2. শান্ত থাকুন আর কথোপকথনটি উপভোগ করুন, প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে জেনে নিন যতটুকু জেনে নেয়া সম্ভব
  3. বিশ্রামাগারে যেয়ে আপনাকে শেষ বারের মতো আরও একবার দেখে নিন
  4. প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করুন , নিয়োগকর্তা আপনাকে কি বোঝাতে চাইছে তা বোঝার চেষ্টা করুন , অনেক সময় তা সরাসরি না হয়ে নিয়োগকর্তারা একটু ঘুরিয়ে বলে থাকেন, সেই বিষয়গুলো বোঝার চেষ্টা করুন।
  5. সাক্ষাৎকার পর্ব শেষ হলে সাক্ষাৎকার গ্রহণকারীদের ধন্যবাদ জানান এবং পরবর্তী পদক্ষেপ কি হবে তা জেনে নিয়ে প্রস্থান করুন

সাক্ষাৎকার সব সময় অনিশ্চিত , আপনি বলতে পারবেন না আপনিই পারবেন , আপনিই জিতে আসবেন , অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় আপনার শত প্রস্তুতি থাকা সত্ত্বেও এমন কিছু প্রশ্নের মুখোমুখি হয়েছেন যার উত্তর আপনাকে অনেক দুর্বল করে দিয়েছে, লক্ষ্য করবেন কোনো এক অজানা কারণে আপনার ভারী আত্মবিশ্বাসী গলা কেঁপে কেঁপে উঠেছে-প্রশ্ন বানের আঘাতে, অনেক সময় নিয়োগকর্তারা অপ্রাসঙ্গিক প্রশ্ন করতে শুরু করেন, যা আপনাকে স্নায়ুবিক ভাবে দুর্বল করে তুলতে পারে , কিন্তু মাথায় রাখবেন এই সকল অনিশ্চিত মুহূর্তগুলোর আবির্ভাবের অন্যতম কারণই হচ্ছে আপনাকে বাজিয়ে দেখা, আপনি কর্ম ক্ষেত্রে অনিশ্চিত মুহূর্তগুলোতে নিজেকে কিভাবে স্থির রাখবেন তা দেখা, তাই সাহস রাখুন, বিজয় আপনারই।
মনে রাখবেন, সাক্ষাৎকারে আসার অন্যতম কারণ যেমন আপনার একটি ভালো চাকরি পাওয়া ঠিক তেমনি সাক্ষাৎকারটি আয়োজনের ও মূল কারণ হচ্ছে তাদের প্রতিষ্ঠানের জন্য একজন যোগ্য কর্মী খুঁজে বের করা,তাই সব সময় মনে রাখবেন, নিয়োগ কর্তারা যাই করুক না কেন তার পিছনের উদ্দেশ্য আপনাকে বাজিয়ে দেখা আপনাকে বাদ দেয়া নয় , তাই তারা প্রতি ক্ষেত্রে আপনার কাছে প্রমাণ চাইবে, আপনাকে জানার, আপনাকে বোঝার । আর তার জন্যই প্রতি মুহূর্তেই আপনাকে প্রমাণ করে যেতে হবে, নিজেকে প্রমাণ করার মানসিকতায় লেগে থাকতে হবে সাক্ষাৎকারের শেষ অবধি।
মনে রাখবেন আপনাকে যাচাই করাই হলো নিয়োগকর্তাদের অন্যতম কাজ, তাই এই যাচাইটা আরো একটু বাজিয়ে দেখতে তারা হয়তো আপনার সাথে অনেক রুক্ষ হতে পারে, হয়তো আপনাকে প্রশ্নের উত্তর দেয়ার সুযোগ না দিয়েই আরো একটি প্রশ্নের অবতারণা করতে পারে, যার উদ্দেশ্য হলো আপনি চাপের মুখে কাজ করতে পারবেন কিনা তা দেখা। তাই লক্ষ্য হারাবেন না, সাহস তো নয়ই, নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাস রেখে প্রশ্নের উত্তর দিন, তাহলেই জয় আপনার।

অনুশীলন , অনুশীলন এবং অনুশীলন

বার বার অনুশীলন যে কোন কাজকে নিখুঁত করে তুলে। একটি ভালো চাকরির সাক্ষাৎকারের জন্য চাই একটি ভালো অনুশীলন। যার ফলে আপনার ভুলত্রুটি আপনি আগে থেকেই ধরতে পারেন এবং নিজে থেকেই শুধরে নেয়ার সুযোগ পাবেন।বিশেষজ্ঞদের মতে একটি ভালো অনুশীলন অভাবনীয় ফলাফল নিয়ে আসতে পারে।আবার অনেক সময় প্রার্থীর ভয় ও স্নায়বিক দুর্বলতার কারণে প্রার্থী ভুল করে বসেন , নিজেকে ঠিক মতো তুলে ধরতে পারেন না একটি ভালো অনুশীলনের মাধ্যমে এই সকল জড়তা ও দুর্বলতাকে সহজেই কাটিয়ে উঠা যায়।আসুন জেনে নেই কিভাবে অনুশীলন করবেন চাকরির সাক্ষাৎকারের জন্য।


নিজের দূর্বলতাগুলোকে খুঁজে বের করুন

আপনার দুর্বল দিকগুলো বের করুন।ভাবুন সাক্ষাৎকারের কোন কোন বিষয় আপনাকে ঘাবড়ে দেয়। কোন কোন বিষয়ের উপর আপনি কাজ করতে চান। যদি সাক্ষাৎকারের পরিবেশ আপনাকে ঘাবড়ে দেয় , কিংবা আপনি প্রশ্নের উত্তর বলার সময় উত্তরগুলোকে অগোছালো করে ফেলেন, তাহলে এই বিষয়গুলো উপর আপনি কাজ করতে পারেন। এই রকম ভাবে বের করুন কি কি বিষয়ের উপর আপনি কাজ করতে চান। এর জন্য আপনার দুর্বল দিকগুলোর একটি লিস্ট তৈরি করতে পারেন এবং সেই সকল দূর্বলতা কিভাবে কাটিয়ে উঠতে পারেন সে বিষয়ে চেষ্টা করুন ।


ছায়া সাক্ষাতকারের পরিবেশ তৈরী করুন

আপনি ঠিক করে ফেলেছেন কি কি বিষয়ের উপর অনুশীলন করবেন। এখন সাক্ষাৎকারে জন্য একটি পরিবেশ তৈরি করুন । এই পরিবেশের মধ্যে থাকতে পারে একটি চেয়ার , একটি টেবিল এবং আপনার দুজন সহকারী যারা চাকরিদাতার অভিনয় করবে। যদি কোনো সহকারী পাওয়া না যায় অথবা চেয়ার টেবিলের মতো করে ছায়া সাক্ষাৎকারে ব্যবস্থা করা না যায় , তাহলে আয়নাকে বেছে নিতে পারেন আপনার সহকারী হিসেবে। সম্পূর্ণ সাক্ষাৎকারটি রেকর্ড করতে পারলে ভালো, ফলে আপনি পরবর্তীতে আপনার ভুলত্রুটি দেখতে পারবেন এবং শুধরে নিতে পারবেন।


শুরু করুন

ছায়া সাক্ষাৎকারের আবহ তৈরি হয়ে গেছে।এখন সাক্ষাৎকার দিন।কখনোই ভাবতে যাবেন না এটি মিথ্যে সাক্ষাৎকার। ভাবুন আপনি সত্যি একটি সাক্ষাৎকার দিচ্ছেন একদম শুরু থেকে শেষ অবধি সাক্ষাৎকার দিন। ভুল হলে আবার শুরু করুন।যতক্ষণ পর্যন্ত না আপনি সন্তুষ্ট হতে পারছেন ততোক্ষণ পর্যন্ত দিয়ে যান।যদি আয়নার সামনে হয় তাহলে নিজেকে ভালো করে লক্ষ্য করুন। সাক্ষাৎকার শেষে নিজের ভুলত্রুটি গুলো লিখে রাখুন এবং শুধরে আবার সাক্ষাৎকার দিন ততোক্ষণ পর্যন্ত যতক্ষণ পর্যন্ত না আপনি নিজেকে সন্তুষ্ট করতে পারছেন।


মন্তব্য সহজভাবে গ্রহণ করুন

ছায়া সাক্ষাৎকার শেষে আপনার সাহায্যকারীর মন্তব্য গ্রহণ করুন। জেনে নিন আপনার কোথায় কোথায় ভুল হয়েছে। ভুলগুলোকে সহজ ভাবে গ্রহণ করুন। এবং তা শুধরে আবার সাক্ষাৎকার দিন। এই ভাবে বার বার অনুশীলনের মাধ্যমে নিজেকে শুধরে নিন।


আপনি রোবট নন

খেয়াল রাখতে হবে আপনার আচরণটি যাতে কোনো ভাবেই রোবটের মতো হয়ে না যায়। যাতে বার বার অনুশীলনের ফলে উত্তরগুলো মুখস্থ হয়ে না যায়। যেন মনে না হয় আপনি মুখস্থ করে এসেছেন কিংবা উত্তর দিতে আপনার কোনো প্রকার কষ্ট হচ্ছে।খেয়াল রাখতে হবে যে উত্তরগুলো যেন সহজ ও সাবলীল শোনায়। সহজ ও সাবলীলভাবে নির্দ্বিধায় উত্তর দেয়ার অনুশীলন করতে হবে।
একটি ভালো প্রস্তুতি একটি ভালো সাক্ষাৎকারের পথ সুগম করে দেয়। আর ভালো প্রস্তুতির জন্য চাই বেশি বেশি অনুশীলন। যা ক্রমান্বয়ে আপনার ভয় , জড়তাকে দূর করে আত্মবিশ্বাসী করে নিজেকে উপস্থাপন করতে সহায়তা করবে। সর্বোপরি একজন সফল প্রার্থী হিসেবে নিয়োগকর্তাদের সামনে তুলে ধরবে।

ভয় কে জয় করুন

ভয় আমাদের সব থেকে বড় শত্রু। আপনার ভেতরে অপরিসীম মেধা আর যোগ্যতা থাকা সত্তেও অহেতুক ভয় আপনার মেধার যমুনা ব্যাংক লিমিটেড হতে দেয় না।এক অদৃশ্য শিকলে যেন বাধা পড়ে আপনার হাত , পা চোখ ,মুখ সব কিছু। আর এই ভয়ের অদৃশ্য শিকলের কারণেই আপনি বুঝতে পারেন উত্তর জানা থাকা সত্ত্বেও সঠিক উত্তরটি আপনার দেয়া হয়ে উঠে নি। আপনার প্রকম্পিত গলা আপনার স্বর কে নিচু করে দিয়েছে , আপনার হাত পা কে শক্ত কাঠের মতো করে দিয়েছে ফলে উত্তর জানা থাকা সত্ত্বেও আপনি পারেননি , পেরে উঠেন নি। তাই চাকরির ইন্টারভিউতে সাফল্য লাভের জন্য , আপনার স্বপ্নের চাকরিটি হাতের মুঠোয় পাবার জন্য ,সর্বপ্রথম কাজই হলো ভয়কে দূর করা। তাহলে আসুন জেনে নেই কিভাবে মন থেকে ভয় দূর করবেন ।


ইতিবাচক চিন্তা করুন

পরাজয়ের চিন্তা নয় , করুন ইতিবাচক চিন্তা। আপনি পারবেন।আপনাকে দিয়েই সম্ভব। যারা পারে তারা আপনারই মত। না পারলে কি হবে , আপনার খুব বড় ক্ষতি হয়ে যাবে কিনা-তা ভাবতে যাবেন না। নিজেকে বলুন “একবার না পারিলে দেখো শতবার , বলুন হয় আমি জিতবো না হয় আমি শিখবো”। পরাজয় বলে কিছুই নেই।জয়ী আপনি হবেনই যদি লেগে থাকেন , যদি আপনার মাঝে একাগ্রতা থাকে আর অধ্যাবসায় থাকে। তাই নেতিবাচক চিন্তা করে নিজেকে দমিয়ে দিবেন না , ভাবুন আমি পারবো , আমার দ্বারা হবে। নিজেকে বলুন আমি আমার শত ভাগ দিয়ে আসবো তারপর ও যদি পরাজয় আসে তাহলে আমি মেনে নিব এবং আমার ভুলগুলো শুধরে আবার ঝাঁপিয়ে পড়ব।এইভাবে ইতিবাচক চিন্তা করুন, আপনার ভেতরের ভয় বাসা বাধতে পারবে না ।

আরো পড়তে চাইলে এখানে ক্লিক করুন, ধন্যবাদ।

অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ম্যানেজারের চাকরি, সহকারী রেজিস্ট্রারের চাকরি, ক্যাম্প বসের চাকরি, ডেটা এন্ট্রি অপারেটরের চাকরি, ডকুমেন্ট কন্ট্রোলারের চাকরি, নির্বাহী সহকারী চাকরি, ফ্রন্ট অফিস এক্সিকিউটিভ চাকরি, অফিস অ্যাটেনডেন্ট চাকরি, অফিস ম্যানেজার চাকরি, অফিস সচিবের চাকরি, ব্যক্তিগত সহকারী চাকরি, ব্যক্তিগত সচিব চাকরি, প্রাইভেট সেক্রেটারি চাকরি, স্কুল অ্যাডমিনিস্ট্রেটরের চাকরি, পরিবহন ব্যবস্থাপকের চাকরি, ট্রাক ড্রাইভারের চাকরি, হেড কনস্টেবলের চাকরি, হোম গার্ডের চাকরি, পুলিশ কনস্টেবলের চাকরি, পুলিশ অফিসারের চাকরি, সাব ইন্সপেক্টর চাকরি, আর কলারের চাকরি, সহকারী ব্যবস্থাপকের চাকরি, ব্যাক অফিস এক্সিকিউটিভ চাকরি, ব্যাঙ্ক ম্যানেজার জবস, বিলিং এক্সিকিউটিভ জবস, বাস ড্রাইভার জবস, বিজনেস অ্যাসোসিয়েট জবস, ক্লেইম অ্যাসোসিয়েট জবস, ক্লিনিক্যাল ডেটা ম্যানেজার জবস, কম্পিউটার অপারেটর জবস, কাস্টমার কেয়ার এক্সিকিউটিভ জবস, কাস্টমার সার্ভিস এক্সিকিউটিভ জবস, কাস্টমার সার্ভিস ম্যানেজার জব, কাস্টমার সাপোর্ট ও এক্সিকিউটিভ জবস চাকরি, ডেলিভারি বয় চাকরি, ফিল্ড অ্যাসিস্ট্যান্ট চাকরি, ফ্লিট ম্যানেজার চাকরি, জালিয়াতি বিশ্লেষক চাকরি, বীমা সার্ভেয়ার চাকরি, জুনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট চাকরি, কেওয়াইসি এ নালিস্ট জবস, মল ম্যানেজার জবস, মেডিকেল রিভিউয়ার জবস, মিস অ্যানালিস্ট জবস, অফিস অ্যাসিস্ট্যান্ট জবস, অফিস বয় জবস, অফিস ক্লার্ক জবস, অফিস কোঅর্ডিনেটর জবস, অফিস স্টাফ জবস

অপারেশন এক্সিকিউটিভ জবস, অপারেশন অ্যানালিস্ট জবস, অপারেশন ম্যানেজার জবস, প্রসেস অ্যাসোসিয়েট জবস , সার্ভিস কোঅর্ডিনেটর জবস, সাবজেক্ট ম্যাটার এক্সপার্ট জবস, টিম লিডার জবস, টেলিকলিং এক্সিকিউটিভ জবস, ভার্চুয়াল অ্যাসিস্ট্যান্ট জবস। একাডেমিক কো-অর্ডিনেটরের চাকরি, অ্যাকাউন্টস ফ্যাকাল্টির চাকরি, অ্যাকাউন্টস শিক্ষকের চাকরি, কলা শিক্ষকের চাকরি, সহকারী অধ্যাপকের চাকরি, সহযোগী অধ্যাপকের চাকরি, জীববিজ্ঞান শিক্ষকের চাকরি, রসায়ন প্রভাষকের চাকরি, রসায়ন শিক্ষকের চাকরি, কম্পিউটার প্রশিক্ষকের চাকরি, কম্পিউটার বিজ্ঞান শিক্ষকের চাকরি, কম্পিউটার শিক্ষকের চাকরি। প্রশিক্ষকের চাকরি, নৃত্য শিক্ষকের চাকরি, অঙ্কন শিক্ষকের চাকরি, অর্থনীতির শিক্ষকের চাকরি, শিক্ষা পরামর্শদাতার চাকরি, শিক্ষা পরামর্শদাতার চাকরি, ইংরেজি প্রভাষকের চাকরি, ইংরেজি শিক্ষকের চাকরি, ইংরেজি প্রশিক্ষকের চাকরি, ফ্রেঞ্চ শিক্ষকের চাকরি, জার্মান শিক্ষকের চাকরি, গেস্ট ফ্যাকাল্টির চাকরি, গেস্ট লেকচারের চাকরি , হিন্দি শিক্ষকের চাকরি, ইতিহাস শিক্ষকের চাকরি, হোম টিউটরের চাকরি, হোস্টেল ওয়ার্ডেন চাকরি, ল্যাব সহকারী চাকরি, লাইব্রেরি সহকারী চাকরি, ব্যবস্থাপনা অনুষদের চাকরি, মন্টেসরি শিক্ষকের চাকরি, সঙ্গীত শিক্ষকের চাকরি, নার্সারি শিক্ষকের চাকরি, নার্সিং টিউটরের চাকরি, অনলাইন টিউটরের চাকরি, শারীরিক শিক্ষা শিক্ষকের চাকরি, পদার্থবিজ্ঞানের প্রভাষকের চাকরি, পদার্থবিদ্যার শিক্ষকের চাকরি, প্লে স্কুল শিক্ষকের চাকরি

প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষকের চাকরি, প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষকের চাকরি, প্রাইভেট টিউটরের চাকরি, সংস্কৃত শিক্ষকের চাকরি, স্কুলের অধ্যক্ষের চাকরি, স্কুল শিক্ষকের চাকরি, বিজ্ঞান শিক্ষকের চাকরি, ছাত্র কাউন্সেলরের চাকরি, টিচিং অ্যাসিস্ট্যান্ট চাকরি, ট্রেনিং ম্যানেজার চাকরি, টিউশন শিক্ষকের চাকরি, ভাইস প্রিন্সিপালের চাকরি, ভিজিটিং ফ্যাকাল্টি চাকরি, ইয়োগা/ যোগ শিক্ষকের চাকরি। আর্কিটেকচারাল অ্যাসিস্ট্যান্ট চাকরি, ব্লক কো-অর্ডিনেটরের চাকরি, গাড়ি চালকের চাকরি, গাড়ি মেকানিকের চাকরি, এমব্রয়ডারি ডিজাইনার চাকরি, ফার্ম ম্যানেজার চাকরি, ফ্যাশন ডিজাইনার চাকরি, ফ্যাশন স্টাইলিস্টের চাকরি, ফায়ার অফিসারের চাকরি, ফিটনেস প্রশিক্ষকের চাকরি, ফ্রিল্যান্স আর্টিস্ট চাকরি, ফ্রিল্যান্স ফটোগ্রাফার চাকরি, জিম প্রশিক্ষক। চাকরি, জিম প্রশিক্ষকের চাকরি, হেয়ার স্টাইলিস্টের চাকরি, হেভি ড্রাইভারের চাকরি, ইন্টেরিয়র ডিজাইনার চাকরি, জেসিবি অপারেটরের চাকরি, জুনিয়র আর্কিটেক্ট চাকরি, মেকআপ আর্টিস্টের চাকরি, ম্যাসেজ থেরাপিস্টের চাকরি, প্যাটার্ন মেকার চাকরি, প্যাটার্ন মাস্টার চাকরি, ব্যক্তিগত প্রশিক্ষকের চাকরি, পরীক্ষা অফিসারের চাকরি, সমাজকর্মীর চাকরি, স্পা থেরাপিস্টের চাকরি, টেক্সটাইল ডিজাইনার চাকরি, আরবান প্ল্যানারের চাকরি, ভেটেরিনারি ডাক্তারের চাকরি, যোগ প্রশিক্ষকের চাকরি অ্যারোনটিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, অ্যারোস্পেস ইঞ্জিনিয়ার চাকরি, বিলিং ইঞ্জিনিয়ার চাকরি, ক্যাড ডিজাইনার চাকরি, ক্যাড ইঞ্জিনিয়ার চাকরি, সিভিল ডিজাইন ইঞ্জিনিয়ার চাকরি

সিভিল ইঞ্জিনিয়ার চাকরি, সিভিল ফোরম্যান চাকরি, সিভিল সাইট ইঞ্জিনিয়ার চাকরি, সিভিল স্ট্রাকচারাল ইঞ্জিনিয়ার চাকরি, নির্মাণ সাইট সুপারভাইজার চাকরি, নির্মাণ সুপারভাইজার। চাকরি, ডিজাইন ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, ড্রাফ্ট ম্যান জবস, ইলেকট্রিক্যাল ডিজাইন ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, ইলেকট্রিক্যাল ডিজাইনার চাকরি, হাইওয়ে ইঞ্জিনিয়ার চাকরি, এইচভিএসি ডিজাইন ইঞ্জিনিয়ার চাকরি, ল্যান্ড সার্ভেয়ারের চাকরি, মেকানিক্যাল ডিজাইনার চাকরি, মেপ ইঞ্জিনিয়ার চাকরি, নেভাল আর্কিটেক্ট চাকরি, পাইপিং ডিজাইন ইঞ্জিনিয়ার চাকরি, পাইপিং ডিজাইনার চাকরি, পাইপিং ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, পাইপিং স্ট্রেস ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, পরিমাণ সার্ভেয়ারের চাকরি, সাইট ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, সাইট সুপারভাইজার চাকরি, স্ট্রাকচারাল ডিজাইনার চাকরি, স্ট্রাকচারাল ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, ক্রেন অপারেটরের চাকরি আর্মি অফিসারের চাকরি, এনভায়রনমেন্টাল কনসালট্যান্টের চাকরি, এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, ফ্যাক্টরি মেডিকেল অফিসারের চাকরি, হেলথ ইন্সপেক্টরের চাকরি, এইচএসই অফিসারের চাকরি, সেফটি ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, সেফটি ম্যানেজার চাকরি, সেফটি অফিসারের চাকরি, সেফটি সুপারভাইজার চাকরি, স্যানিটারি ইন্সপেক্টরের চাকরি ব্র্যান্ড ম্যানেজারের চাকরি, ক্যাম্পেইন ম্যানেজারের চাকরি, চিফ ব্র্যাঞ্চ ম্যানেজারের চাকরি, কমিউনিটি ম্যানেজার চাকরি, ডিজিটাল মার্কেটার চাকরি, ডিজিটাল মার্কেটিং এক্সিকিউটিভ চাকরি, ডিজিটাল মার্কেটিং ম্যানেজার চাকরি, ইভেন্ট কো-অর্ডিনেটরের চাকরি, ইভেন্ট ম্যানেজার চাকরি, ইভেন্ট অর্গানাইজার চাকরি, মার্কেট রিসার্সার চাকরি, মার্কেটিং অ্যানালিস্টের চাকরি

মার্কেটিং এক্সিকিউটিভ জবস, মার্কেটিং ম্যানেজার জবস, মেডিসিন রিপ্রেজেন্টেটিভ জবস, পাবলিক রিলেশন অফিসার জবস, এসইও অ্যানালিস্ট জবস, এসইও এক্সিকিউটিভ জবস, সোশ্যাল মিডিয়া এক্সিকিউটিভ জবস, সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজার জব অ্যানেসথেসিয়া টেকনিশিয়ানের চাকরি, ব্লাড ব্যাঙ্ক টেকনিশিয়ানের চাকরি, কার্ডিয়াক টেকনিশিয়ানের চাকরি, ক্লিনিক্যাল ফার্মাসিস্টের চাকরি, ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিস্টের চাকরি, ক্লিনিক্যাল রিসার্চ অ্যাসোসিয়েট চাকরি, ক্লিনিক্যাল রিসার্সার চাকরি, Cssd টেকনিশিয়ানের চাকরি, ডেন্টাল অ্যাসিস্ট্যান্ট চাকরি, ডেন্টাল হাইজিনিস্ট চাকরি, ডেন্টাল ডেন্টাল চাকরি ডায়ালাইসিস টেকনিশিয়ানের চাকরি, মাঠকর্মীর চাকরি, স্বাস্থ্য কর্মকর্তার চাকরি, হাসপাতাল অ্যাডমিনিস্ট্রেটরের চাকরি, হাসপাতাল ম্যানেজার চাকরি, হাসপাতালের ফার্মাসিস্টের চাকরি, ল্যাব টেকনিশিয়ানের চাকরি, মেডিকেল অ্যাডভাইজার চাকরি, মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট চাকরি, মেডিকেল কোডার চাকরি, মেডিকেল ল্যাবরেটরি টেকনিশিয়ান চাকরি, মেডিকেল অফিসারের চাকরি, মেডিকেল অফিসারের চাকরি প্রতিনিধি চাকরি, মেডিকেল সোশ্যাল ওয়ার্কার চাকরি, মেডিকেল রাইটার চাকরি, এমআরআই টেকনিশিয়ান চাকরি, নার্সিং সহকারী চাকরি, নার্সিং সুপারিনটেনডেন্ট চাকরি, চক্ষু সহকারী চাকরি, ওটি সহকারী চাকরি, ওটি টেকনিশিয়ান চাকরি, ব্যক্তিগত ড্রাইভারের চাকরি, ফার্মাসি সহকারী চাকরি, ফার্মাসি টেকনিশিয়ান সহকারী চাকরি, চাকরি, রেডিওলজি টেকনিশিয়ানের চাকরি, বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তার চাকরি, স্টাফ নার্সের চাকরি, ওয়ার্ড বয় চাকরি, এক্স-রে টেকনিশিয়ানের চাকরি বয়লার অপারেশন ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, এক্সক্যাভেটর অপারেটরের চাকরি, মাইনিং ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, মোবাইল ক্রেন অপারেটরের চাকরি, পেট্রোলিয়াম ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি

পাইপিং সুপারভাইজার চাকরি, রেডিও অপারেটরের চাকরি। এসি টেকনিশিয়ান জবস, এগ্রিকালচার ইঞ্জিনিয়ার জবস, এগ্রিকালচার ফিল্ড অফিসার জবস, এয়ারক্রাফ্ট মেইনটেন্যান্স ইঞ্জিনিয়ার জব, এয়ারক্রাফ্ট মেইনটেন্যান্স টেকনিশিয়ান জব, এয়ারক্রাফ্ট টেকনিশিয়ান জব, অ্যাপ্লিকেশন ইঞ্জিনিয়ার জব, অটো ইলেকট্রিশিয়ান জব, অটোমেশন ইঞ্জিনিয়ার জব, অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ার জব, অটোমোটিভ বায়োমেডিশিয়ান চাকরী

বিএমএস অপারেটরের চাকরি, বয়লার অ্যাটেনডেন্ট চাকরি, বয়লার ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, বয়লার অপারেটরের চাকরি, ব্রডকাস্ট ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, সিসিটিভি টেকনিশিয়ান চাকরি, কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার চাকরি, সিএনসি মেশিন অপারেটর চাকরি, সিএনসি মেশিনিস্টের চাকরি, সিএনসি অপারেটর চাকরি, সিএনসি প্রোগ্রামার চাকরি, সিএনসি অপারেটর চাকরি ডিজেল মেকানিকের চাকরি, বৈদ্যুতিক প্রকৌশলীর চাকরি, বৈদ্যুতিক রক্ষণাবেক্ষণ প্রকৌশলীর চাকরি, বৈদ্যুতিক প্রকল্প প্রকৌশলীর চাকরি, বৈদ্যুতিক সাইট ইঞ্জিনিয়ার চাকরি, বৈদ্যুতিক সুপারভাইজার চাকরি, ইলেকট্রিক্যাল টেকনিশিয়ান চাকরি, ইলেকট্রনিক মেকানিকের চাকরি, ইঞ্জিনিয়ারিং ম্যানেজার চাকরি, এস্টেট ম্যানেজার চাকরি, ফ্যাব্রিকেশন ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি , ফাইবার ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, ফিল্ড ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, ফিল্ড এক্সিকিউটিভ চাকরি, এইচভিএসি ইঞ্জিন r চাকরি

এইচভিএসি টেকনিশিয়ানের চাকরি, শিল্প প্রকৌশলীর চাকরি, ইন্সট্রুমেন্ট সুপারভাইজার চাকরি, ইন্সট্রুমেন্ট টেকনিশিয়ানের চাকরি, ইন্সট্রুমেন্টেশন ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, জুনিয়র ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, মেশিন অপারেটরের চাকরি, রক্ষণাবেক্ষণ প্রকৌশলীর চাকরি, রক্ষণাবেক্ষণ ব্যবস্থাপকের চাকরি, রক্ষণাবেক্ষণ মেকানিকের চাকরি, মোটরসাইকেল ইঞ্জিনিয়ারিং চাকরি চাকরি, মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, মেকানিক্যাল ফিটারের চাকরি, মেকানিক্যাল মেইনটেন্যান্স ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, মেকানিক্যাল টেকনিশিয়ানের চাকরি, মিটার রিডারের চাকরি, মোবাইল টেকনিশিয়ানের চাকরি, মোটর মেকানিকের চাকরি, প্ল্যানিং ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, প্ল্যান্ট অপারেটরের চাকরি, পাওয়ার প্ল্যান্ট অপারেটরের চাকরি, প্রসেস ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, প্রোডাকশন অ্যাসিস্ট্যান্ট। চাকরি, প্রোডাকশন ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, প্রোডাকশন ম্যানেজার চাকরি, প্রোডাকশন সুপারভাইজার চাকরি, প্রজেক্ট কো-অর্ডিনেটরের চাকরি, প্রজেক্ট ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি

পাম্প অপারেটরের চাকরি, রোবোটিক্স ইঞ্জিনিয়ার চাকরি, বৈজ্ঞানিক সহকারী চাকরি, সার্ভিস অ্যাডভাইজার চাকরি, সার্ভিস ইঞ্জিনিয়ার চাকরি, সার্ভিস ম্যানেজার চাকরি, সোলার ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, সাব ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, কারিগরি সহকারী চাকরি, যানবাহন পরিদর্শকের চাকরি, ভিএমসি অপারেটরের চাকরি , VMC প্রোগ্রামার চাকরি। অটোমেশন পরীক্ষকের চাকরি, লেপ পরিদর্শকের চাকরি, ইটিএল পরীক্ষকের চাকরি, ফুড অ্যানালিস্টের চাকরি, ফুড টেকনোলজিস্টের চাকরি

গেম টেস্টার চাকরি, ল্যাব অ্যাটেনডেন্টের চাকরি, ম্যানুয়াল পরীক্ষকের চাকরি, মেটালার্জিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, এনডিটি টেকনিশিয়ানের চাকরি, পেইন্টিং ইন্সপেক্টরের চাকরি, কিউ ইঞ্জিনিয়ার চাকরি, Qc ইঞ্জিনিয়ার জবস, কিউ টেস্টার জবস, কিউসি ইন্সপেক্টর জব, কোয়ালিটি অ্যানালিস্ট জব, কোয়ালিটি চেকার জব, কোয়ালিটি কন্ট্রোলার জব, কোয়ালিটি ইঞ্জিনিয়ার জব, কোয়ালিটি ইন্সপেক্টর জব, কোয়ালিটি ম্যানেজার জব, সফটওয়্যার টেস্টার জব, টেস্ট ইঞ্জিনিয়ার জব

টেস্ট ম্যানেজার জব, ওয়েল্ডিং ইঞ্জিনিয়ার জব , ওয়েল্ডিং ইন্সপেক্টর চাকরি। কম্পিউটার সায়েন্স ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি, জুয়েলারি ডিজাইনার চাকরি, জুনিয়র রিসার্চ ফেলো চাকরি, পিসিবি ডিজাইনার চাকরি, প্রকল্প সহকারী চাকরি, গবেষণা সহকারী চাকরি, গবেষণা সহযোগী চাকরি, গবেষণা বিজ্ঞানী চাকরি। ক্যাটাগরি ম্যানেজারের চাকরি, গার্মেন্ট মার্চেন্ডাইজারের চাকরি, ট্যাক্সি ড্রাইভারের চাকরি, ভিজ্যুয়াল মার্চেন্ডাইজারের চাকরি। অ্যাকাউন্টস ম্যানেজার সেলস জবস, এরিয়া ম্যানেজার জবস

এরিয়া সেলস ম্যানেজার জব, বিড ম্যানেজার জব, ব্রাঞ্চ ম্যানেজারের জব, বিজনেস কনসালটেন্ট জবস, বিজনেস ডেভেলপমেন্ট অ্যাসোসিয়েট জবস, বিজনেস ডেভেলপমেন্ট এক্সিকিউটিভ জবস, বিজনেস ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজার জবস, বিজনেস এক্সিকিউটিভ জবস, ডেলিভারি ড্রাইভার জব, ফ্যাশন কনসালটেন্ট জবস, ফিল্ড বয় জবস, ফিল্ড অফিসার জবস, ইন্স্যুরেন্স এজেন্ট জবস, এলআইসি এজেন্ট জবস, রিয়েল এস্টেট এজেন্ট জবস, রিলেশনশিপ ম্যানেজার জবস, রিটেইল স্টোর ম্যানেজার জবস, সেলস অ্যাসোসিয়েট জবস, সেলস কোঅর্ডিনেটর জব, সেলস ইঞ্জিনিয়ার জব, সেলস এক্সিকিউটিভ জবস ম্যানেজার জবস, সেলস অফিসার জবস, সেলস প্রমোটার জবস, সেলস রিপ্রেজেন্টেটিভ জবস, স্টোর ম্যানেজার জবস।

Let's Go to the Right Section

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

close
error: You may not copy anything from us.